শুভ্র হত্যা
Home » গৌরীপুর পৌর আ’লীগের সভাপতি যে কারণে বহিষ্কার হলেন
এক নজরে ব্রেকিং নিউজ ময়মনসিংহ সব খবর

গৌরীপুর পৌর আ’লীগের সভাপতি যে কারণে বহিষ্কার হলেন

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান শুভ্র হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে গৌরীপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলামকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) সন্ধ্যায় গৌরীপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডা.হেলাল উদ্দিন আহাম্মেদ’র সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক বাবু বিধু ভূষন দাস’র সঞ্চালনায় এক জরুরী আলোচনা সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

একই সাথে তার দলীয় প্রাথমিক সদস্যপদ বাতিলের সুপারিশ করে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ বরাবর চিঠি দিয়েছে উপজেলা আওয়ামী লীগ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপস্থিত ছিলেন ১৪৮ ময়নমসিংহ ৩ আসনের সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহম্মেদ।

এ বিষয়ে ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল বলেন, বহিস্কারের বিয়টি আমি শুনেছি। এখনো কোন চিঠি পাইনি। তবে দ্রুত সময়েই পেয়ে যাব। এর আগে শনিবার (১৭ অক্টোবর) রাতে গৌরীপুর মধ্যবাজারে চায়ের দোকানে সহযোগীদের নিয়ে চা খাওয়ার সময় মাসুদুর রহমান শুভ্রর ওপর সিএনজি চালিত অটোরিকশা করে আসা বেশ কয়েকজন সন্ত্রাসী হামলা চালায়। শুভ্রকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। পরে শুভ্রকে গুরুতর আহত অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেলে নেয়ার পর চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনার দুই দিন পর গত সোমবার (১৯ অক্টোবর) রাতে নিহতের ছোট ভাই আবিদুর রহমান প্রান্ত বাদী হয়ে পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও পৌরসভার মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম এবং উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ও মইলাকান্দা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রিয়াদুজ্জামান রিয়াদসহ ১৪ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ৫/৬ জনকে আসামি করে গৌরীপুর থানায় মামলা করেন।

হামিমুর রহমান